উল্লাস

উল্লাস মূর্তি ভেঙে চুরমার; রাজার না এক "খারাপ" নেতার। উল্লাস মূর্তিতে কালি লেপা শেষ; রাজার না এক "শুধু" নেতার। উল্লাস সামনে চৈত্র মাস নিতীবোধ নিয়ে তাই দড়াদড়ী। উল্লাস উল্লাস উল্লাস।

Advertisements

ভীতু

ছন্নছাড়া হয়ে বেঁচে আছি আমরা। ঘূন পোকারা আমাদের স্বর কেড়েছে বোবার গোঙানি আমাদের সম্বল। চৌকাঠ আমরা পার করি তবে ফিরে ঠিকই আসি মানুষ খুন করে, স্বপ্ন মিথ্যা প্রমাণ করে চোখরাঙানিকে আমাদের যে বড্ড ভয়। সংবাদ ২/৫/২০১৮

একটা ভালোবাসার কবিতা

শিকরহীন হয়ে কথারা হাড়ায় শহুরে আকাশে হাসিও খোঁজে বিনা-কারণ; শুধু একটু উষ্ণতা। কংক্রিট মনে কতো রাস্তা কাটাকুটি করে যায়। অবুঝ অভিমান জমে চলে, আমরা তাও চুপ ব‍্যস্ত আমরা নিজেদের বুলস্ আই নিয়ে। ছায়াতে আমাদের শরীরের মিলন প্রতিদিন উষ্ণতায় আমাদের বিতৃষ্ণা তাই শীতলতা- আর শর্তে আমরা করি সহবাস, ভালোবাসা- তখন শুধু শীতের বিকেল, ক্ষণস্থায়ী ও- কুয়াশাচ্ছন্ন... Continue Reading →

ঠিকানাহীনের পারে

নিয়ে যেতে চাও যতদূর যাব ততদূর। ঠিকানা হারিয়ে আমরা দু'জন হাঁটবো মিলিয়ে খামখেয়ালী ইচ্ছে আমাদের আরেকবার ধূসর রঙের। তুমি কাকে ভালোবাস বা আমি কাকে থাক না উহ্য, হোক না তা নিস্তব্ধতার প্রতীক আজ রাতে। আজ রাতে আমরা ঘুমবো না, কথাও বলবোনা শুধু থাকবে উষ্ণতা অনেক দিনের জমা। সংবাদ ১৬/১২/১৭

খোঁজ

না-বলা-কথা কবিতা অনেক হলো। দিনকাল পড়ে আছে এখন হাতে লেখাই যায়। মনের মধ্যে মন তাতে হবে অসন্তুষ্ট। "ভালো আছি" মিথ্যা সত্যির মাঝে দোলাচলে আমি ও আরেকজন আমি খুঁজি ভাবনার নীল উৎস।। --সংবাদ (১৯/১১/২০১৭)

অন্য একদিন

তুমি নেই বলে ক্লান্ত চুলে আঙ্গুল চলেনা কারুর তুমি নেই বলে রাত্রির অন্ধকার ফ্যাকাশে (আর) নিস্তব্ধতা নিঃসঙ্গ। পরবাস শহরের বুকে, মুখচোরা ইচ্ছেরা; স্মৃতিরা আছড়ে পড়ে শিশির হয়ে হেমন্তের ভোর আমার মুখ। তুমি নেই বলে উষ্ণতাহীন ভোরের প্রথমালো তুমি নেই বলে...থাক আজ নয় আর-- অন্য কোনদিন।

নতুন প্রেম/New Love

হাওয়ায় মিশছে হলুদ পাতা (গাছেদের) নতুন প্রেমের গল্পর শুরু হবে কিনা সময় জানে শহর এখন ব্যস্ত, নতুন ঋতুর জন্য, হেমন্তের রোদ্দুরে সাজছে সে, তার জন্যে। Yellow leaves has mixed with breeze New love will bloom or not Time knows that. City is busy, for new season, In autumnal sun getting decorated, For that.

চলাচল

দ্বিধা আর দ্বন্দ্বের মধ‍্যবর্তী অংশে ভালোবাসা নিয়েছিল নিঃশ্বাস শেষবার। অনেক আগের কথা সেসব। আমাদের যা ছিল তা একান্ত, ব্যক্তিগত দ্বন্দ্ব আর অবুঝতার মাঝে তাদের চলাচল। -*- সংবাদ।।

স্মৃতিরা

তোমার স্মৃতিদের বুঝিনা তাই হেমন্তের রং মেখে বারান্দায় তারা যখন বসে তখন বুঝি-- ভূলে থাকা আসলে দিদার কাছে শোনা মহাভারত রামায়ণ বা রূপকথারা যাদের ভূলেও ভোলা হয়না। তুমিও শুনিয়েছিলে-- অনেক গান; কয়েকটা কবিতা তারাও আসে ফ্যাকাশে হওয়া নীলরঙা হয়ে। আমার, না তোমার ও আমার, বারান্দায় তখন আমাদের গল্পের অসমাপ্তি ধরা দেয়ে ফিকে হওয়া আকাশী দেওয়ালে।

Powered by WordPress.com.

Up ↑